ট্রেনের টিকেট বুকিং করার পদ্ধতি। বিকাশের মাধ্যমে ট্রেনের টিকেট ক্রয় ২০২৪

বাংলাদেশ রেলওয়ে টিকেট বুক করার সহজ পদ্ধতি। কীভাবে বাংলাদেশ রেলওয়ে টিকেট বুক করা যায়? ঘরে বসে খুব সহজে বিকাশের মাধ্যমে বাংলাদেশ রেলওয়ে টিকেট ক্রয় করার সহজ পদ্ধতি।

ট্রেনের টিকেট বুকিং করার পদ্ধতি। বিকাশের মাধ্যমে ট্রেনের টিকেট ক্রয় ২০২৪

আজকের আর্টিকেলের মাধ্যমে আমি আপনাদের জানাবো বাংলাদেশ রেলওয়ে টিকেট বুকিং করার সহজ পদ্ধতি এবং কীভাবে আপনারা ট্রেনের টিকেট ক্রয় করতে পারেন। তো আশা করছি আপনারা শেষপর্যন্ত আমার সাথেই থাকবেন এবং মনোযোগ দিয়ে পুরো আর্টিকেলটি পড়বেন।

বন্ধুরা আপনাদের মধ্যে অনেকেই আছেন যারা নানান ব্যস্ততায় স্টেশনে গিয়ে ট্রেনের টিকেট ক্রয় করার পর্যাপ্ত সময় পান না। আপনারা ঘরে বসেই অনলাইনের মাধ্যমে ট্রেনের টিকেট বুক করতে চান। কিন্তু এই বিষয়টি আপনাদের অজানা হওয়ায় সেটিও হচ্ছে না। আজ আমি আপনাদের জানাবো সেসব বিষয় যা অনুসরণ করলে আপনি খুব সহজে ঘরে বসেই ট্রেনের টিকেট বুক করতে পারবেন।

বন্ধুরা আমার আজকের আর্টিকেলে আলোচনা করা পদ্ধতি গুলো অনুসরণ করলে আপনারা কোনো ভোগান্তি ছাড়াই ঘরে বসেই বিকাশের মাধ্যমে ট্রেনের টিকেট বুকিং করতে পারবেন। তো কীভাবে কোন পদ্ধতি অনুসরণ করে আপনারা ঘরে বসে ট্রেনের টিকেট বুক করবেন তা জানার জন্য আমার আজকের আর্টিকেলটি পুরোটা পড়তে হবে। চলুন দেরি না করে শুরু করা যাক আজকের টপিক।





বাংলাদেশ রেলওয়ে টিকেট বুকিং 

রেলওয়ে টিকেট বুকিং করার জন্য আপনারা অনেকেই চেষ্টা করে থাকেন। আপনারা যদি রেলওয়ে টিকেট বুকিং করতে চান তবে সর্বপ্রথম একটি ওয়েবসাইটে যেতে হবে। নিচে আপনাদের জন্য ওয়েবসাইটের লিংকটি দেওয়া হলো।

ওয়েবসাইট লিংক এখানে ক্লিক করুন । বন্ধুরা সর্বপ্রথম আপনাদের উপরোক্ত লিংকে গিয়ে একটি একাউন্ট খুলতে হবে। এরপর আপনি যে অঞ্চলে অবস্থান করেন অর্থাৎ বাংলাদেশ রেলওয়ে এই ওয়েবসাইট থেকে আপনার রুটটি সিলেকশন করুন। আপনি বর্তমানে কোন স্টেশনের পাশে আছেন সেগুলো আপনাকে সিলেক্ট করতে বলা হবে। এগুলো সিলেক্ট করা হয়ে গেলে আপনি খুব সহজে টিকেট এভিলিটি দেখতে পাবেন।

আপনি যে টিকেটটি ক্রয় করতে চাচ্ছেন সে টিকেটের যদি কোনো অ্যাভেলেবল থাকে তাহলে purchase বাটনে ক্লিক করার মাধ্যমে আপনারা খুব সহজে টিকেট ক্রয় করতে পারবেন। বন্ধুরা এবার চলুন জেনে নেওয়া যাক ট্রেনের টিকেট বুকিং রেজিষ্ট্রেশন প্রক্রিয়া সম্পর্কে-

ট্রেনের টিকেট বুকিং রেজিষ্ট্রেশন প্রক্রিয়া  

আপনারা যারা ট্রেনের টিকেট বুকিং দিতে চান তারা চাইলে ধাপে ধাপে এই পদ্ধতি গুলো অনুসরণ করে খুব সহজে ট্রেনের টিকেট বুকিং দিতে পারেন। তো চলুন ধাপে ধাপে জেনে নেওয়া যাক।



সর্বপ্রথম আপনাকে বাংলাদেশ রেলওয়ের এখানে ক্লিক করুন এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে।




এরপর আপনি মেনুতে রেজিস্ট্রার নামক একটি অপশন দেখবেন। আপনাকে সেখানে ক্লিক করতে হবে।




রেজিস্টার নামক অপশনে ক্লিক করে আপনার ইমেইল সহ আরো বিস্তারিত তথ্য দিয়ে রেজিষ্ট্রেশন সম্পূর্ণ করবেন। 




এবার একাউন্ট খোলার সময় যে মোবাইল নাম্বারটি ব্যবহার করেছিলেন সে নাম্বারে একটি কোড যাবে এবং সেটি ব্যবহার করে আপনি আপনার একাউন্টটি ভেরিফাই করে নিবেন।




ভেরিফাই করা হয়ে গেলে আপনার একাউন্ট সফলভাবে তৈরি করতে পেরেছেন এমন একটি তথ্য পাবেন। আপনি চাইলে এবার লগ ইন করতে পারেন।




একাউন্ট করা এবার শেষ হলে এবার আপনাকে ড্যাশবোর্ডে যেতে হবে এবং আপনার প্রোফাইল আপডেট করতে হবে। আপনার প্রোফাইল আপডেট করার জন্য আপনার বর্তমান ঠিকানা পোস্টাল কোড আরো অনেক ধরনের তথ্য সেখানে চাওয়া হবে আপনি এই সব তথ্য গুলো দিয়ে আপনার প্রোফাইলটি আপডেট করে নিবেন। সবকিছু ঠিকঠাক করে বসিয়ে আপনি আপনার প্রোফাইলটি সুন্দরভাবে আপডেট করে নিতে পারবেন।






বাংলাদেশ রেলওয়ে টিকিট ক্রয় করবেন যেভাবে

আপনারা যদি ওয়েবসাইটটি সঠিকভাবে রেজিস্ট্রেশন করা সম্পূর্ণ করেন তাহলে এবার আপনাদেরকে জানতে হবে কীভাবে বাংলাদেশ রেলওয়ে টিকেট ক্রয় করতে পারবেন সেই সম্পর্কে

এবার আপনাদেরকে ধাপে ধাপে সুন্দর করে দেখাবো কীভাবে বাংলাদেশ রেলওয়ে টিকেট ক্রয় করবেন।

ধাপ ১: সর্বপ্রথমে আপনাদেরকে এখানে ক্লিক করুন এই ওয়েবসাইটটিতে যেতে হবে এরপরে আপনার একাউন্টটিতে লগইন করতে হবে।

ধাপ ২ঃ আপনি এবার এইরকম Welcome To Bangladesh Railway E-Ticketing Service লেখা একটা পেইজ দেখতে পাবেন। আপনাকে এবার কিছু তথ্য যেমন বর্তমান স্টেশন, গন্তব্য স্টেশন, যাতায়াতের তারিখ এগুলো সিলেক্ট করে নিতে হবে। এরপরে আপনাকে সিটের ক্লাস সিলেক্ট করে নিতে হবে। যেমন ধরুন- Ac-s/Rahan/F-seat/F chair এইভাবে।

ধাপ ৩ঃ এবার আপনারা ওখানে Find নামক একটি বাটন দেখতে পারবেন। এরপরের পেইজে আপনার পূরণ করা তথ্য অনুযায়ী সেখানে সব ধরনের রুটের ট্রেনের তথ্য সময় এবং ভাড়া সহ সব জানিয়ে দেওয়া হবে।

ধাপ ৪ঃ আপনাদের এবার আপনার পছন্দের ট্রেনটি সিলেক্ট করে নিতে হবে এবং আপনারা যেখানে যেতে চাচ্ছেন সেখানে যাওয়ার জন্য আপনার টিকলট অ্যাভেলেবল রয়েছে কিনা সেটা জেনে নিতে হবে। এইজন্য আপনি সেখানেচেইক এবিলিটি বলে একটি অপশন দেখতে পারবেন সেই অপশনটিতে ক্লিক করবেন।

ধাপ ৫ঃ যদি টিকেট অ্যাভেলেবল থেকে থাকে তাহলে আপনি সেখানে buy a ticket নামক একটি অপশন আছে সেই অপশনে ক্লিক করে আপনারা এখান থেকে ভিসা কার্ড বিকাশ অন্যান্য পেমেন্ট গেটওয়ক ব্যবহার করে টিকেট কিনতে পারবেন।

ধাপ ৬ঃ পেমেন্ট কার্যক্রমটি সম্পন্ন হওয়ার পর আপনার ব্যালেন্স থেকে নির্দিষ্ট পরিমাণ অ্যামাউন্ট কেটে নেওয়া হবে। আপনি টিকেট কেনার সময় যে ইমেইল টি ব্যবহার করেছেন সেই মেইলটিতে আপনার ক্রয়কৃত টিকিট পাঠিয়ে দেওয়া হবে।

ধাপ ৭ঃ আপনাকে ইমেইল থেকে টিকেট প্রিন্ট করে নিতে হবে এবং সেটি ছাপিয়ে নিতে হবে। তারপরে আপনি এই প্রিন্ট করা ই-টিকিট দেখিয়ে নিজের গন্তব্য স্থানে যেতে পারবেন বাংলাদেশ রেলওয়ে ট্রেনের মাধ্যমে।

বিকাশের মাধ্যমে ট্রেনের টিকিট কিভাবে কিনবেন।

আপনারা যখন বাহিরে টিকেট অপশনে ক্লিক করবেন তখন দেখবেন ওখানে পেমেন্ট মেথড নামের একটি অপশন আছে। সেখানে বিকাশের জন্য একটি অপশন পাবেন। আপনারা বিকাশের এই অপশনটিতে ক্লিক করার মাধ্যমে বিকাশ দিয়ে পেমেন্ট করতে পারবেন। এর মাধ্যমে ট্রেনের টিকেট কিনতে পারবেন। তাছাড়া আপনারা চাইলে বিকাশ App দিয়েও ট্রেনের টিকেট ক্রয় করতে পারবেন।

বিকাশ অ্যাপ দিয়ে ট্রেনের টিকিট কেনার নিয়মাবলী

বন্ধুরা এখন আপনাদের জানাবো কীভাবে বিকাশ অ্যাপের মাধ্যমে ট্রেনের  টিকেটের জন্য পেমেন্ট করবেন। আপনারা চাইলে বিকাশ অ্যাপের মাধ্যমে  আপনারা চাইলে খুব সহজেই ট্রেনের টিকেট ক্রয় করতে পারবেন। বিকাশ অ্যাপ দিয়ে ট্রেনের টিকেট ক্রয় করা অনেক সহজ। তাহলে চলুন জেনে নেয়া যাক কিভাবে বিকাশ অ্যাপ দিয়ে খুব সহজে ক্রয় করবেন ট্রেনের টিকিট-

এর জন্য শুরুতে আপনাকে আপনার বিকাশ অ্যাপটি চালু করে নিতে হবে। এরপরে আপনি সেখানে টিকেট অপশন দেখতে পাবেন আপনাকে টিকেট অপশনটিতে ক্লিক করতে হবে।

টিকিট অপশনটিতে ক্লিক করার পর স একটি পেইজ দেখতে পাবেন আপনি এবার এখানে ট্রেন সিলেক্ট করবেন।

ট্রেন সিলেক্ট করার পর বাংলাদেশ রেলওয়ে বলে আরও একটি পেইজ আসবে আপনি এখানে সব ধরনের শর্ত মেনে সম্মতি জানিয়ে ঠিক আছেতে ক্লিক করবেন।

এবার আপনি একটি পেইজ আসবে এবং এখানে আপনি সব ধরনের তথ্য দিয়ে চেইক করে নিতে পারবেন টিকিট অ্যাভেলেবল আছে কিনা।

যদি টিকিট অ্যাভেলেবল থেকে থাকে তাহলে আপনি এবার Buy now অপশনটিতে ক্লিক করবেন এবং বিকাশের মাধ্যমে টিকিট ক্রয় করতে পারবেন।

বন্ধুরা আজকের আর্টিকেলটি এই পর্যন্তই। আশা করছি আজকের লেখাটি আপনাদের ভালো লেগেছে এবং এর মাধ্যমে আপনারা উপকৃত হবেন। আপনাদের মতামত অবশ্যই আমাদের কমেন্ট বক্সে জানাবেন। রোজ রোজ এমন পোস্ট পেতে নিয়মিত আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করবেন। এতক্ষণ আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।